শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

ট্রাম্প-বাইডেন সরাসরি বিতর্ক

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৪৬ Time View

স্টাফ রিপোর্টার- নাদিয়া রহমান,ঢাকা

তারিখ -০৭.০৯.২০২০

 

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী আলোচনা এখন দুই প্রার্থীর আসন্ন সরাসরি বিতর্ককে ঘিরে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ২৯ সেপ্টেম্বর প্রথম সরাসরি বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে।

রিপাবলিকান প্রচার শিবির বলছে, প্রথম বিতর্কেই ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী জো বাইডেনকে ধরাশায়ী করতে পারবেন ট্রাম্প। শুরুর বিতর্কেই আমেরিকাকে ঐক্যবদ্ধ করার আন্তরিক বার্তাটি জনগণের কাছে পৌঁছাবে, এমন প্রত্যাশা বাইডেন শিবিরের।

কোভিড–১৯ পরিস্থিতির কারণে এবারের নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্রের মাঠের প্রচার অনেকটাই সীমিত। এখনো সমাবেশের নিয়ন্ত্রিত অবস্থা বিরাজ করছে। অন্যান্য বছরের মতো এখানে–ওখানে এবারের রাজনৈতিক আড্ডাও তেমন হচ্ছে না। আমেরিকার নির্বাচনে প্রান্তিক এলাকায় যেসব সামাজিক সংগঠন সক্রিয় থাকে, তারাও সমাবেশ করতে পারছে না। এ কারণে নির্বাচনী প্রচার অনেকটাই দুই প্রার্থীর কেন্দ্রীয় অবস্থান থেকেই পরিচালিত হচ্ছে।
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জাতীয়ভাবে প্রচারে এগিয়ে আছেন। রাষ্ট্রীয় প্রচারকে ব্যবহার করার সুযোগ নিচ্ছেন তিনি। প্রতিদিনই কয়েকবার টুইট করছেন। হোয়াইট হাউসে প্রেস ব্রিফিং করছেন। সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে আসার জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নানা বিষয়ে তাঁর স্বভাবসুলভ বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন।

ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন বহুমাত্রিক প্রচার চালাচ্ছেন। ডেমোক্রেটিক পার্টির ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে লাগানো হচ্ছে মাঠপর্যায়ের গণসংযোগের কাজে।

জো বাইডেন প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিতর্ক মঞ্চের অপ্রত্যাশিত লোক হিসেবে পরিচিত ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মোকাবিলা করার জন্য।

ভোটারদের সঙ্গে সরাসরি সংযোগের সুযোগ এবারে সীমিত। সমাবেশে উপস্থিত হয়ে দলীয় সমর্থকদের সঙ্গে করমর্দন করার প্রচারণা এবারে উবে গেছে করোনা বাস্তবতায়।
২৯ সেপ্টেম্বর ওহাইও অঙ্গরাজ্যের ক্লিভল্যান্ডে সরাসরি উপস্থিত হবেন করোনাকালের দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

দুই দলের জাতীয় কনভেনশনের পর রাজনৈতিক প্রচার এখন প্রার্থীকেন্দ্রিক।

জাতীয়ভাবে জনমতে ডোনাল্ড ট্রাম্প ফারাক কিছুটা হলেও কমিয়ে আনতে পেরেছেন এর মধ্যে। ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্যগুলোয় দুই প্রার্থীর অবস্থান এখন খুব কাছাকাছি।

রিপাবলিকান–সমর্থকদের মতে, প্রথম বিতর্কেই ট্রাম্প চমৎকার করবেন। তাঁর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির জন্য দলটি চেয়ে আছে ২৯ সেপ্টেম্বরের দিকে।

ট্রাম্পের প্রচার শিবিরে ২০১৬ সালে উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন স্যাম নানবার্গ। তিনি বলেন, কনভেনশনের পরে নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতার হয়ে উঠছে বলে দেখা যাচ্ছে। ট্রাম্প জনমতের ব্যবধান কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন। প্রথম সরাসরি বিতর্কে ট্রামকে খুব ভালো করতে হবে বলে তিনি মনে করেন। স্যাম নানবার্গ বলেন, জাতীয়ভাবে সম্প্রচারিত এবারের টিভি বিতর্ক আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি লোকজন দেখবেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102