শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
করোনায় মৃত্যুবরণ করা এক যুবকের শেষ কথাগুলো গ্রাজুয়েট নার্সিং কোর্সের শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানালেন ড. মোহাম্মদ ইউনুস চিকিৎসক, নার্স সহ শীঘ্রই ২০ হাজার নিয়োগ আসছেঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী দারিদ্র ও মেধাবীদের লোনের মাধ্যমে ডিপ্লোমা নার্সিং কোর্সে অধ্যায়নের সুযোগ করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া সাময়িক স্থগিত করেছে সৌদি সরকার। রাজধানীর দুই নার্সিং শিক্ষার্থীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলো সিলেট ওসমানী বিএনএ বাংলাদেশের নার্সিং শিক্ষা মান্ধাতার আমলেরঃ চট্টগ্রাম মেডিকেলের সাবেক অধ্যক্ষ সেবা নিশ্চিত করতে নার্সদের অভিযোগ সরাসরি জানাতে বললেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বিভাগীয় পর্যায়ে আইসিইউ প্রশিক্ষণ চালু রাখায় ওসমানী বিএনএ’র কৃতজ্ঞতা কক্সবাজারে ৮৫ হাজার টাকা বেতনে চাকরির সুযোগ বিএসএমএমইউ’তে গ্রাজুয়েট নার্সিং শিক্ষার্থীদের ক্যাপিং সেরিমনি অনুষ্ঠিত

মহীয়সী নারীমাদার তেরেসার ১১০ তম জন্মদিবসে বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০
  • ৪২০ Time View

👤স্টাফ রিপোর্টার-বিভাবরী,ঢাকাঃতারিখ🕡২৬-০৭-২০২০ঃ

মহীয়সী নারীমাদার তেরেসার ১১০ তম জন্মদিবসে বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জল

১৯১০ সালে, আলবেনিয়ার স্কোপ্জে শহরে ২৬শে অগাস্ট জন্মগ্রহণ করেন মাদার টেরেসা | বর্তমানে এই শহরটা আজ মেসিডোনিয়া রিপাবলিকের অন্তর্গত |

জন্মের সময় তাঁর নাম ছিলো অ্যাগনিস | ছোট্ট অ্যাগনিস মাত্র আট বছর বয়সে তাঁর বাবাকে হারায় | বাবার মৃত্যুর পর তাঁর মা তাঁকে রোমান ক্যাথলিক আদর্শে লালন-পালন করেন |

মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি গৃহত্যাগ করে একজন মিশনারী হিসাবে যোগদান করেন সিস্টার্স অব লোরেটো সংস্থায় |

১৯২৯ সালে ভারতের দার্জিলিংয়ে এসে নব দীক্ষিত হিসাবে তিনি সেখানকার একটি মিশনারীতে কাজ শুরু করেন এবং ১৯৩১ সালের ২৪শে মে, তিনি সন্যাসিনী হিসাবে প্রথম শপথ গ্রহণ করেন | সেইসময় তিনি মিশনারীদের পৃষ্টপোষক সন্ত টেরেসা দি লিসিয়াক্সের নামানুসারে টেরেসা নামটা গ্রহণ করেন |

১৯৩৭ সালের ১৪ই মে, পূর্ব কোলকাতার লরেটো কনভেন্ট স্কুলে পড়ানোর সময় তিনি নিজের মনে চূড়ান্ত শপথ গ্রহণ করেন এখানকার দীন-দরিদ্র মানুষদের বাকিটা জীবন সেবা করবেন |

পড়ানোর ফাঁকে সিস্টার মাদার টেরেসা শহরের আর্তদের সেবা চালিয়ে যেতে থাকেন | দরিদ্র ও অনাথ শিশুদের তিনি কাছে টেনে নেন এবং তাদের সেবা করতে থাকেন স্নেহের সাথে |

অবশেষে ১৯৪৮ সালে লরেটো কনভেন্ট স্কুলের সাধারণ পোশাক ছেড়ে দিয়ে নীলপার সাদা শাড়িতে নিজেকে সারাজীবনের জন্য বদলে ফেলেন মাদার টেরেসা |স্থাপন করেন “মিশনারীস অব চ্যারিটি” নামক সংস্থা |

ক্ষুদার্থ,নগ্ন,গৃহহীন,আত্ম-নিপীড়িত, সর্বহারা ও সমাজ বর্জিত সকল মানুষদের পাশে তিনি দাড়ান পরম মমতাময় স্নেহের সাথে | কোলকাতায় মাত্র ১৩ জন সিস্টার নিয়ে যে মিশনারী হিসাবে তাঁর পথ চলা শুরু আজ সেটা বিশ্বের ১৩৩টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে |

বহুদিন রোগে ভোগার পর তিনি ১৯৯৭ সালের ৫ই সেপ্টেম্বর দেহত্যাগ করেন।

Achievements of Mother Teresa:

১. ১৯৬২ সাল: পদ্মশ্রী পুরস্কার
রামোনম্যাগসেসেপুরস্কার
২. ১৯৬৯ সাল: জওহরলাল নেহেরু পুরস্কার
৩. ১৯৭১ সাল: পোপ জন ২৩ শান্তি পুরস্কার
৪. ১৯৭৩ সাল: টেমপ্লেটন পুরস্কার
৫. ১৯৭৫ সাল: আলবার্ট সেটজার আন্তর্জাতিক পুরস্কার
৬. ১৯৭৬ সাল: পাসিম ইন টেররিস পুরস্কার
৭. ১৯৭৮ সাল: বালজান পুরস্কার
৮. ১৯৭৯ সাল: প্যাট্রনাল মেডেল, নোবেল শান্তি পুরস্কার
৯. ১৯৮০ সাল: ভারতরত্ন পুরস্কার
১০. ১৯৮৫ সাল: রাষ্ট্রপতি পদক
১১. ১৯৯৪ সাল: রাষ্ট্রীয় স্বর্ণপদক
১২. ১৯৯৭ সাল: কংগ্রেসনাল গোল্ড মেডেল

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102