শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:২৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
করোনায় মৃত্যুবরণ করা এক যুবকের শেষ কথাগুলো গ্রাজুয়েট নার্সিং কোর্সের শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানালেন ড. মোহাম্মদ ইউনুস চিকিৎসক, নার্স সহ শীঘ্রই ২০ হাজার নিয়োগ আসছেঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী দারিদ্র ও মেধাবীদের লোনের মাধ্যমে ডিপ্লোমা নার্সিং কোর্সে অধ্যায়নের সুযোগ করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া সাময়িক স্থগিত করেছে সৌদি সরকার। রাজধানীর দুই নার্সিং শিক্ষার্থীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলো সিলেট ওসমানী বিএনএ বাংলাদেশের নার্সিং শিক্ষা মান্ধাতার আমলেরঃ চট্টগ্রাম মেডিকেলের সাবেক অধ্যক্ষ সেবা নিশ্চিত করতে নার্সদের অভিযোগ সরাসরি জানাতে বললেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বিভাগীয় পর্যায়ে আইসিইউ প্রশিক্ষণ চালু রাখায় ওসমানী বিএনএ’র কৃতজ্ঞতা কক্সবাজারে ৮৫ হাজার টাকা বেতনে চাকরির সুযোগ বিএসএমএমইউ’তে গ্রাজুয়েট নার্সিং শিক্ষার্থীদের ক্যাপিং সেরিমনি অনুষ্ঠিত

“জেলখানায় নয়” করোনা আক্রান্ত একজন নার্সের লকডাউন

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০
  • ৭৮৯ Time View

চীফ রিপোর্টার মতিউর রহমানঃ

মোঃ সাইফুল ইসলাম। একজন পেশাদার নার্সিং কর্মকর্তা। করোনায় ফ্রন্টলাইনার হিসেবে কর্মরত চট্টগ্রামের একটি করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে। গত ৩রা জুন ঐ নার্সের শরীরে করোনা ধরা পড়ে। এর পর থেকে সামাজিকভাবে নানা প্রতিকুলতার স্বীকার হচ্ছেন নিয়োমিত। সাম্প্রতি একটি ফেসবুক স্টাটাসে তুলে ধরেন তার এসব তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা। চেয়েছেন দোয়া ও কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি। নিচে তার পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলোঃ

TO WHOM IT MAY CONCERN,

নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর কে কেন জানাতে হবে সবকিছু? কুর্মিটোলা হাসপাতালে, কুয়েত-মৈত্রীর মত হাসপাতালে যদি এত অসুবিধা থাকে, সমস্যায় জর্জরিত থাকে, সেক্ষেত্রে রাজধানীর বাইরে কি নাজুক পরিস্থিতি হয় তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।
আচ্ছা, ওনাদের কি অধীনস্থদের প্রতি কোন খোঁজ খবর নাই??? তাছাড়া লোকাল অথরিটি, ইনচার্জ, সুপারভাইজার, উপসেবা তত্ববধায়ক, পাবলিক হেল্থ নার্স, সেবা তত্ববধায়ক, উনারা কি দায়িত্ব পালন করেন???
সবকিছুর জন্য কেন মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা মাথা ঘামাবেন? কেন হতাশায় চুর্ণবিচুর্ণ হবেন?
আমার আপত্তি সেই জায়গায়।

করোনা পজিটিভ হয়ে বাসায় আইসোলেশনে আছি, কেউ কোন খোঁজ নিচ্ছেনা অফিসায়ালি, কোন দিক নির্দেশনা পাচ্ছি না। ১৪ দিন পরে নাকি ২য় স্যাম্পল দিয়ে আসতে হবে, বাসায় স্যাম্পল কালেকশন করতে আসবে না কেউ!!!
সরকারী কর্মকর্তা হয়ে কি পাচ্ছি? মে মাসের বেতন ও পাইনি সম্পূর্ণ, অনলাইনে বিল সাবমিট করছিলাম ১ম বার, হার্ডকপি ও জমা দিয়েছি হিসাবরক্ষণ অফিসে।।।

এগুলো,পাবলিক্লি বলতে ও ইচ্ছা করেনা, না বলেও পারিনা।🙁🙁

আমি আমাদের UHFPO, RMO, Nursing Incharge জানিয়েছিলাম, পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে ও নিজের সুরক্ষা, রি-টেস্ট ও কনফার্মেশন টেস্টের হয়রানি থেকে বাঁচতে অন্তত প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন এ ভর্তি থাকতে চাই।
কিন্তু এ ব্যাপারে কারো কোন দিক নির্দেশনা ও সহযোগীতা পাইনি। নিজ দায়িত্বে গাড়ি ভাড়া করে আমাকে যেতে বলা হয়েছিল।

🚫করোনা ইউনিটে ডিউটি করে আজ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়েরেন্টাইন পাইনি বলে আমি বাড়িতে আসছি হোম কোয়েরেন্টাইনে।
পজিটিভ পাওয়ার পরও আমি বাড়িতে। হোম আইসোলেশনে আছি। কি লাভ সরকারী কর্মকর্তা হয়ে যদি সরকারীভাবে আমার চিকিৎসা না হয়?? একটা প্যারাসিটামল ও যদি না পাই??🚫

🔂সম্প্রতি বিভাগীয় পরিচালক, (স্বাস্হ্য) , চট্টগ্রাম স্মারক নংঃ পঃ স্বাঃচঃ/করোনা ভাইরাস/প্রসা-২০/১৯২৪৮ তারিখঃ ১৯/০৫/২০ খ্রীঃ মূলে সাময়িকভাবে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের অধীনে আলাদা কোভিড ইউনিট হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতাল, চট্টগ্রামে পদায়ন করা হয়। কিন্তু তখন আমি করোনা ইউনিটে ডিউটিরত ছিলাম। ২২ /৫/২০ ইং তারিখে আমাকে অব্যাহতি দেওয়া হয় বদলীকৃত স্থানে যোগদানের জন্য। কিন্তু UHFPO Sir আমাদের ২ জনকে ছাড়পত্রের মধ্যে ২২ তারিখ না দেখিয়ে ২০/০৫/২০২০ ইং তারিখ দেখায়। আমরা আপত্তি জানালে বলেন যে, ট্যাকনিক্যাল প্রবলেম না হওয়ার জন্য ২ দিন কম দেখিয়েছেন ছাড়পত্রে। সমস্যা হবেনা।
উল্লেখ্য যে, সন্দ্বীপ উপজেলা থেকে বদলীকৃত ৫ জনের মধ্যে কেউ ই ২০/৫/২০ তারিখে যোগদান করেনি ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের অধীনে আলাদা কোভিড ইউনিট হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতাল, চট্টগ্রামে। কারণ ঘুর্ণিঝড় আম্পানের কারনে বৈরী আবহাওয়ার কারনে উনারা ৩ জন ২৪/৫/২০ তারিখে যোগদান করে চট্টগ্রামে।
আর আমি আইসোলেশনে ডিউটি পরবর্তী কোয়েরেন্টাইনে থাকা অবস্থায় কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়। তাই নতুন কর্মস্থলে নির্দিষ্ট কর্মদিবসে যোগদান করতে পারিনি।

⏩এমতাবস্থায় আমি দুই কর্তৃপক্ষের মধ্যিখানে পড়ে গেলাম।⏪

সরকারী চাকরী করে কি আমি কোটিপতি হয়ে গেছি? মেডিকেলে জব করাটা কি আমার অপরাধ?

গ্রামে এসেও অনেক বঞ্ছনার শিকার হয়েছি প্রতিবেশী, গ্রামবাসীর এবং চৌকিদারের (গ্রাম পুলিশ)কাছে। আমাদের ঘর নাকি ৩০ দিনের জন্য লকডাউন!!!! পরে আমি চেয়ারম্যানকে ফোন দিই, থানার পুলিশকে ফোন দিয়ে চৌকিদারের অযৌক্তিক ৩০ দিনের লকডাউনের কাগজটি সরাই, এবং ১৪ দিনের কোযেরেন্টাইন নিজ দায়িত্বে গ্রহণ করি।
যদিও আমি কারো সাথে মিশি নাই, মসজিদে পর্যন্ত যায় নাই।

তবে বাড়ির বড় ভাই, আত্মীয় স্বজনরা, বন্ধু-বান্ধব রা খোঁজখবর নিচ্ছে, সহযোগীতা করতেছে। শুকরিয়া।

তবে আমার কর্মস্থল সন্দ্বীপ উপজেলায় দেখেছি, দল-মত-নির্বিশেষে সবাই এক। সবাইকে মোটামুটি সমানভাবে দেখে প্রশাসন। রোগীদের ফলো-আপ টেস্ট ও ৪/৫ দিনের মধ্যেই করে। ঐখানে করোনাক্রান্ত রোগীদের ৫ বেডের জন্য আইসোলেশন ইউনিট চালু আছে। অথচ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে অবস্থিত চট্টগ্রামের প্রবেশপথে সীতাকুন্ড উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে কোন আইসোলেশন বেড নেই।

আমি সমাজ থেকে বেশিকিছু আশা করি না। জাস্ট আক্ষেপের সুরে বলছি এসব। আল্লাহর দয়া ছাড়া আর কারো কাছে কিছু চাওয়া ও নাই।
০১/০৫/২০ তারিখে স্যাম্পল দিতে গিয়েও অনেক হয়রানি হইছিলাম। পরে পরিচয় দিয়ে, ঢাকা থেকে মোঃ মোহাম্মদ বেলাল উদ্দীন স্যার, নার্সিং অফিসার, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর, ঢাকা এবং সীতাকুন্ড স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের একজন সিনিয়র স্টাফ নার্স জনাব সাইফুল ইসলাম সাহেবের এর সহায়তায় কোন রকমে Flu-Corner এ মেডিক্যাল অফিসারকে দেখায় এবং কোভিড-১৯ টেস্টের জন্য প্রায় ১ঃ৩০ ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে নমুনা জমা দিই।

Police declared during lockdown announcement that, “Member-Chairman will manage every daily necessary commodities as lockdown started. We can communicate with them if needed.”

Wht the dirty politics! Shame!!

I never dropped my vote in any single election after becoming a voter since 2013. Rather I am not involved in any political party.

However, It’s our destiny, Almighty Allah is our hope. On the Final Count, Every man is equal. and it’s life after death.

★★★ভালো থাকুক পৃথিবী, ভালো থাকুক প্রজাতন্ত্রের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
আর আমরা #বাংলাদেশী_নার্সিং_কর্মকর্তাগণ কখনো সুখের দেখা পাবনা, নায্য অধিকারটুকুও পাবনা। যুগ যুগ ধরে এমনটা চলছে। এভাবেই চলুক। বেশী কিছু বললে চাকরি থাকবেনা জানি। এটাই কপালের লিখন, এটাই অলিখিত নিয়ম।★★★

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102