বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
করোনায় মৃত্যুবরণ করা এক যুবকের শেষ কথাগুলো গত ১০ বছরে ৩২ হাজার নার্স নিয়োগঃ প্রধানমন্ত্রীকে স্বানাপের শুভেচ্ছা নতুন আট হাজার নার্স নিয়োগ দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে সাদেকের শুভেচ্ছা গ্রাজুয়েট নার্সিং কোর্সের শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানালেন ড. মোহাম্মদ ইউনুস চিকিৎসক, নার্স সহ শীঘ্রই ২০ হাজার নিয়োগ আসছেঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী দারিদ্র ও মেধাবীদের লোনের মাধ্যমে ডিপ্লোমা নার্সিং কোর্সে অধ্যায়নের সুযোগ করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া সাময়িক স্থগিত করেছে সৌদি সরকার। রাজধানীর দুই নার্সিং শিক্ষার্থীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলো সিলেট ওসমানী বিএনএ বাংলাদেশের নার্সিং শিক্ষা মান্ধাতার আমলেরঃ চট্টগ্রাম মেডিকেলের সাবেক অধ্যক্ষ সেবা নিশ্চিত করতে নার্সদের অভিযোগ সরাসরি জানাতে বললেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বিভাগীয় পর্যায়ে আইসিইউ প্রশিক্ষণ চালু রাখায় ওসমানী বিএনএ’র কৃতজ্ঞতা

আমি ভীত নই, সংকট উত্তরণে দৃঢ় পায়ে হেঁটে যাবো : নতুন স্বাস্থ্য সচিব

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৬ জুন, ২০২০
  • ৭৪৪ Time View
Chief Reporter Motiur Rahman. Date: 06-06-2020
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের ভূমিকা নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের দায়িত্ব পাওয়া নতুন সচিব মো. আবদুল মান্নান আজ শনিবার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন, যেখানে সংকট উত্তরণে দৃঢ় পায়ে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তিনি।
প্রার্থনা, হ্যাশট্যাগ দিয়ে নতুন স্বাস্থ্য সচিব মো. আবদুল মান্নান লিখেছেন, ‘ভাবছি, সম্প্রতি আমার একটি বদলিকে কেন্দ্র করে (এটি পদোন্নতি নয়, স্থান পরিবর্তন) দেশব্যাপী এমনকি দেশের বাহির থেকেও আমার অগণিত বন্ধু, সহকর্মী, শুভাকাঙ্ক্ষী, বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের সতীর্থ ও নিত্যশুভার্থীগণ আমার অতীত কর্মময়তা বিবেচনা করে যে অভাবনীয় আশাবাদ, উচ্ছ্বাস ও গগনস্পর্শী প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তা আমাকে রীতিমতো বিব্রত ও বাকরুদ্ধ করেছে। যুগপৎভাবে আমাকে এক কঠিনতম চ্যালেঞ্জের সামনে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। ’
সচিব মো. আবদুল মান্নানের প্রশ্ন, ‘জাতীয় জীবনের এমন উদ্বেগ, উৎকন্ঠা ও মানুষের আশা আকাঙ্ক্ষার বাস্তব রূপদান, চাওয়া পাওয়ার মিল অমিলে আমরা কী বিস্ময়কর কিছু করে উঠতে পারবো? বিদ্যমান এবং দৃশ্যমান চিত্রটি কী রাতারাতি বদলে দেয়া যাবে?’
তিনি আরও লিখেছেন, ‘তবুও বলছি, আমি মোটেও ভীত নই, হতাশ নই, জয়ের ব্যাপারে, উত্তরণের পথে আত্মপ্রত্যয়ে দৃঢ় পায়ে সামনে হেঁটে যাবো।

আমি সততায় বিশ্বাস করি, এ দেশ আমাকে অনেক দিয়েছে যা কখনো ভাবিনি।
আমাদের কী কিছুই করণীয় নেই এই মাটির জন্যে? রজনীকান্ত সেন এর কথায়, ‘আমি অকৃতি অধম বলেও তো কিছু কম করে মোরে দাওনি। ’
বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ৮ম ব্যাচের কর্মকর্তা আবদুল মান্নান লিখেছেন, জানি, এবারের এ যাত্রার মূল সারথি হয়ে আছেন সমগ্র দেশবাসী ও বাঙালি জাতি। চেতনায় ও প্রেরণায় আছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব এবং তাঁর যোগ্যতম কন্যা মানবিক, সংবেদনশীল ও বিশ্বনন্দিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আমার প্রিয় শুভানুধ্যায়ীগণের কাছ থেকে বরাবরের মতো নিরন্তর দোয়া ও শুভকামনা প্রত্যাশা করছি।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ জানুয়ারি মো. আবদুল মান্নানকে সচিব পদে পদোন্নতি দিয়ে ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হয়েছিল। এরপর গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে নতুন সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তিনি। আবদুল মান্নান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়া তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিপ্লোমা-ইন-এডুকেশন ডিগ্রি অর্জন করেন।

এছাড়া তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিপ্লোমা-ইন-এডুকেশন ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবনে মাঠ প্রশাসনে সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে সুনাম ও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করেন মো. আবদুল মান্নান। পরে নিষ্ঠার সঙ্গে ব্রাক্ষণবাড়িয়া ও চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।
চাকরি জীবনে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন পদে কর্মরত থেকে সুনাম কুড়ান মো. আবদুল মান্নান। এছাড়া রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পরিচালক, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও রাজনৈতিক উপদেষ্টার একান্ত সচিব হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দায়িত্ব পালন করেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে যুগ্ম সচিব ও অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে দায়িত্ব পালন শেষে চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার পদে মো. আবদুল মান্নানকে পদায়ন করা হয়।
সরকারের তথ্য কমিশন আয়োজিত ‘আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস-২০১৯’ এ শ্রেষ্ঠ বিভাগীয় কমিশনার হিসেবে ‘তথ্য অধিকার পদক’ পেয়েছেন মো. আবদুল মান্নান। মিয়ানমারের নিপীড়নের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ১০ লক্ষ রোহিঙ্গার সার্বিক কার্যক্রম তদারকি ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে গঠিত জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের ডেপুটি টিম লিডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জনপ্রশাসনের মেধাবী কর্মকর্তা মো. আবদুল মান্নান।
source: bd protidin

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102